আবু লাহাবের প্রতি অভিসম্পাত করে কেন সূরা নাযিল করা হল?

আবু লাহাবের প্রতি অভিসম্পাত করে কেন সূরা নাযিল করা হল?

সূরা লাহাব অবতীর্ণের প্রেক্ষাপট ও আবু লাহাবকে অভিসম্পাতের কারণ কি?

অনেক সময়ই আমাদের মনে প্রশ্ন জাগে যে, পবিত্র কুরআনুুল কারীমে আল্লাহ তাআলা বিশেষভাবে আবু লাহাবের প্রতি অভিসম্পাত করে কেন সূরা লাহাব নাযিল করলেন? অথচ মক্কার অসংখ্য কাফের নবী মুহাম্মাদ রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কে গাল-মন্দ করেছেন ও কষ্ট দিয়েছেন।

উত্তর : নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম নবুওত প্রাপ্ত হওয়ার কিছুদিন পর সাফা পাহাড়ে উঠে নিজ বংশের লোকজনদেরকে ডাকেন এবং সমবেত করেন। 

এবং সেখানে সকলকে একাত্ববাধের (এক আল্লাহ্‌র) প্রতি ঈমান ও তাঁর সত্য নবুওতের প্রতি ঈমান এনে ইসলামে দীক্ষিত হওয়ার জন্য সকলকে আহ্বান জানান।

ঠিক এই আহ্বানের সময় আবু লাহাব বলে উঠল লাগলো-

আবু লাহাবের প্রতি অভিসম্পাত করে কেন সূরা নাযিল করা হল?

تَبًّا لَكَ، أَلِهذَا جَمَعْتَنَا؟

তুমি ধ্বংস হও! তুমি কি আমাদেরকে এইজন্যই এখানে ডেকেছ?

আল্লাহ পাক রাব্বুল আলামীন আবু লাহাবের এই কথার প্রতিউত্তরে সূরা লাহাব নামে এই সূরাটি নাযিল করেন।

উক্ত সূরার প্রথম আয়াতে

بسم الله الرحمن الرحيم… تَبَّتْ يَدَا أَبِي لَهَبٍ● و

আবু লাহাবকে অভিসম্পাত দিয়ে বলা হয়েছে, আবু লাহাবের দুই হাতই ধ্বংস হোক। তথা সে নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে যেই অভিসম্পাত করেছে। সেইটা রাসূলুল্লাহ সাঃ এর জন্য প্রযোজ্য নয়! বরং তার নিজের জন্যই প্রযোজ্য, ফলে আবু লাহাব বিশেষভাবে অভিসম্পাত প্রাপ্ত।

কারণ অন্যান্য কাফেরগণ নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে অনেক কষ্ট দিয়েছে ঠিকই, কিন্ত কেউ তাঁর ধ্বংসের জন্য বদ দোয়া করেন নাই। যেটা একমাত্র আবু লাহাবই করেছেন।

তাই আল্লাহ পাক রাব্বুল আলামীন বিশেষভাবে আবু লাহাবের প্রতি অভিসম্পাত করে কুরআনুুল কারীমে সূরা লাহাব নামক সূরাটি অবতীর্ণ করেছেন।

বিঃদ্রঃ আরবী বাগধারায় ‘হাত ধ্বংস হওয়া’ দ্বারা ব্যক্তি বা সত্তার ধ্বংসই বোঝানো হয়।

রেফারেন্সঃ তাফসীরে তাবারী 24/715-716 পৃঃ সহীহ বুখারী শরীফ। হাদীস নং. 4801 যাদুল মাসীর 9/258-259 পৃঃ মেইন সোর্স 

 

আরো পড়ুনঃ ছোটদের ইসলামিক গল্প Chotoder Islamic Golpo

আরো পড়ুনঃ মহিলাদের ইতেকাফ করার নিয়মাবলী 

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *