কোকোনাট ভিনেগারের উপকারিতা ও ব্যবহারের নিয়ম

কোকোনাট ভিনেগারের উপকারিতা ও খাওয়ার নিয়ম

কোকোনাট ভিনেগারের উপকারিতা সমূহ।

কোকোনাট ভিনেগারের উপকারিতা ও বৈশিষ্ট্যাবলী। কোকোনাট ভিনেগারে রয়েছে অনেক ধরণের, মিনেরালস, প্রোবায়োটিক, polyphenols, এসাইটিক এসিড, জিংক, এন্টিঅক্সিডেন্টসহ আরো অনেক ধরণের ভিটামিনস,  স্বাভাবিকভাবে কোকোনাট ভিনেগার ওজন হ্রাস, হজম শক্তির উন্নতি, ইমিউন সিস্টেমের উন্নতিসহ হার্টের সু-স্বাস্থ্য ও বিভিন্ন স্বাস্থ্য সুবিধা প্রদান করে বলে দাবি করা হয়।

যদিও, এখনো পর্যন্ত মেডিক্যাল রিসার্চ দ্বারা সবগুলো সাব্যস্ত হয়নি। যাইহোক, তবুও আমরা বিশ্বস্ত সূত্র থেকে নিম্নে কোকোনাট ভিনেগারের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ৭ টি উপকারিতার কথা বর্ণনা করব। coconut vinegar Benefits in Bengali Language

কোকোনাট ভিনেগারের প্রধান ৭ টি উপকারিতা

১। পেট/অন্ত্রের ভালো ব্যাকটেরিয়া তথা প্রোবায়োটিক ব্যাকটেরিয়া বৃদ্ধি করে।

এই ভিনেগারে রয়েছে অনেক প্রকার ভিটামিনস, মিনেরালস, ম্যাগনেসিয়াম, আইরণ, কোলিন, পোসপোরাস, কোপার, পটাসিয়াম, এবং জিংক, সাথে এটি প্রোবায়োটিক খাবারের অন্যতম একটি সোর্স যা আপনার অন্ত্রের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে। এবং পেটের মধ্যে থাকা ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া দূরভূত করে।

এই ভিনেগার খাবার গ্রহণের পূর্বে বা খাবারের সাথে এক গ্লাস পানির সাথে মিশ্রণ করে, নিয়মিত খেলে আপনার হজম শক্তি বৃদ্ধি করবে।

এবং এটি টাইপ ২ ডায়াবেটিস, Heart attack, ও অন্যান্য disease এর এগেনেইস্ট এ শরীরকে যুদ্ধ করতে সাহায্য করবে।

২। অতিরিক্ত ওজন কমাতে সাহায্য করে।

কোকোনাট ভিনেগার উইথ মাদারে রয়েছে Acetic acid যেটি আপনার পেটের চর্বি গলাতে সাহায্য করবে। এবং শরীরে আতিরিক্ত ফ্যাট জমতে দিবে না।

আর সাথে এটি ক্যালোরি মুক্ত হওয়ায় আপনার অতিরিক্ত ওজন কমাতে খুব ভালো কাজ করবে।

কারণ ভিনেগারে থাকা এসেটিক এসিড আপনার ঘন ঘন ক্ষুদা লাগা দূর করে আপনাকে দীর্ঘক্ষণ তৃপ্ত ও পেট পূর্ণ অনুধাবন করাবে। 

ফলে অটো ফেজি করে কোকোনাট ভিনেগার আপনার পেটে জমে থাকা চর্বি গলাতে সাহায্য করে অতিরিক্ত ওজন হ্রাস করবে।

এবং 12-সপ্তাহের একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে, যে সকল ডায়েটে মান্যকারী প্রতিদিন 1-2 টেবিল চামচ (15-30 মিলি) ভিনেগার খেয়েছিল তারা 3.7 পাউন্ড (1.7 কেজি) পর্যন্ত হ্রাস করেছে এবং তাদের শরীরের চর্বি 0.9% পর্যন্ত হ্রাস করেছে।

অন্যদিকে, শুধুমাত্র ডায়েট নিয়ন্ত্রণ কারীগণ যারা কোকোনাট ভিনেগার গ্রহণ করেননি তারা 0.9 পাউন্ড (0.4 কেজি) ওজন হ্রাস করতে পেরছেন।

আরো পড়ুনঃ ওজন কমানোর সেরা নিরামিষ খাদ্য তালিকা।

৩। টাইপ ২ ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।

গবেষণায় দেখা গেছে যে, কোকোনাট ভিনেগার রক্তে শর্করার মাত্রা কমাতে সাহায্য করে এবং টাইপ 2 ডায়াবেটিসের বিরুদ্ধে এটি কিছু সুরক্ষা দিতে পারে।

আপেল সিডার ভিনেগারের মতো, কোকোনাট ভিনেগারে ও অ্যাসিটিক অ্যাসিড থাকে। যেটি ভিনেগারের প্রধান বৈশিষ্ট্য।

এবং আরো বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে যে কার্বোহাইড্রেট সমৃদ্ধ খাবারের পর অ্যাসিটিক অ্যাসিড ব্লাড সুগার স্পাইক কমাতে সাহায্য করে।

আর কোকোনাট ভিনেগার ডায়াবেটিস রোগীদের রক্তে শর্করার মাত্রা কমাতে পারে। এবং ইনসুলিন সংবেদনশীলতাকে 34% পর্যন্ত উন্নত করতে সাহায্য করতে পারে।

এই কোকোনাট ভিনেগার ডায়াবেটিস রোগীদের ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের জন্য খুবই উপকারী।

৪। ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।

কোকোনাট ভিনেগারে থাকা পটাসিয়াম আপনার ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণের জন্য একটি মূল্যবান টনিক হিসেবে কাজ করে। কারণ রিসার্চে দেখা গেছে যে, ভিনেগার ব্যবহারে শরীরের ক্ষতিকর কোলেস্টেরল বা LDL triglyceride Cholesterol কমিয়ে ভাল কোলেস্টেরল বা HDL Cholesterol বৃদ্ধিতে অনেক সহায়তা করে।

ফলে শরীরে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক থাকে এবং ব্লাড প্রেসার ও হার্ট Deases এর সম্ভাবনা কমিয়ে আনে।

আরো পড়ুনঃ কোলেস্টেরল থেকে মুক্তির উপায় ও কোলেস্টেরল পরিচিতি।

৫। হার্টের স্বাস্থ্য ভালো রাখে, এবং Heart attack এর সম্ভাবনা কমিয়ে দেয়।

কোকোনাট ভিনেগার আপনার হার্টের স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে পারে। কারণ এই ভিনেগার তৈরি করতে নারিকেলের পানি ব্যবহার করা হয়।

যেটি পটাসিয়ামের খুব ভালো একটি উৎস, এবং পটাসিয়াম হল এমন একটি খনিজ যা নিম্ন রক্তচাপ এবং হৃদরোগ ও স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়।

নিয়মিত ব্যবহারে আপনি কোকোনাট ভিনেগারের এই উপকারিতা পেতে পারেন খুব সহজেই।

একটি পর্যবেক্ষণমূলক সমীক্ষায় উল্লেখ করা হয়েছে যে, যে সকল মহিলারা সপ্তাহে 5-6 বার অলিভ অয়েল এবং ভিনেগার দিয়ে তৈরি সালাদ ড্রেসিং খেয়েছিলেন তাদের হৃদরোগ হওয়ার সম্ভাবনা 54% পর্যন্ত কম ছিল।

৬। ইমিউন সিস্টেমের উন্নতি করতে সাহায্য করে।

কোকোনাট ভিনেগার উইথ মাদারে রয়েছে ভিটামিন C, জিংক, পটাসিয়াম, মেগনেসিয়াম, আইরণ, মেনগানিস, phosphorus, এন্টিঅক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন B1 B2 B6 B9 B12 যেগুলো আমাদের ইমিউন সিস্টেমেকে উন্নত করার জন্য খুবই উপকারি।

এই ভিনেগার আমাদের ইমিউন সিস্টেমের উন্নতি করে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। 

৭। নারীদের ভেজাইনাল ইনফ্লামেশনের এগেনেইস্টে ফাইট করতে সাহায্য করে।

ভিনেগারে থাকা এসেটিক এসিড শরীরের অনেক প্রকার ব্যাকটেরিয়ার সাথে যুদ্ধ করতে পারে। এটি E cloi Bacteria এবং G. vaginalis ব্যাকটেরিয়ার সাথে লড়াই করে নারীদের ভেজাইনাল ইনফ্লামেশন থেকে রক্ষা করে।

এই উপকারিতা একটি টেস্ট-টিউব গবেষণায় দেখা গেছে। কিন্তু বাস্তব জীবনে এই সুবিধা অর্জনের জন্য কীভাবে ভিনেগার ব্যবহার করবেন তা এখনও অস্পষ্ট ও গবেষণাধীন রয়েছে। Source in English

 

কোকোনাট ভিনেগারের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ও ব্যবহারের নিয়ম।

কোকোনাট ভিনেগারের উপকারিতা ও ব্যবহারের নিয়ম
Best 7 health benefits of coconut vinegar in bengali 

ভিনেগারের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াঃ কোকোনাট ভিনেগারে রয়েছে এসেটিক এসিড যেটি আপনার দাঁত ও মাড়ির স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। যদি আপনি তা সরাসরি পান করেন অথবা তা দিয়ে দাঁত মোড়ান। তাহলে এটি আপনার দাঁত ও মাড়ি ক্ষয় করে ফেলবে।

কিন্ত এর সঠিক ব্যবহার আপনার জন্য মঙ্গলজনক ও সুখকর হবে।

কোকোনাট ভিনেগার খাওয়ার নিয়ম ও সঠিক ব্যবহার পদ্ধতিঃ আপনি চাইলে ভিনেগারকে খাবারের সাথে মিশ্রণ করে খেতে পারেন।

পানিতে মিশ্রণ করে খেতে পারেন। সকালে খালি পেটে খেতে পারেন অথবা রাতে ঘুমানোর আগেও খেতে পারেন।

উত্তম ফলাফলের জন্য এই ভিনেগার আপনি সপ্তাহে ৬ দিন স্বাভাবিকভাবেই খাবারের সাথে মিশিয়ে খেতে পারেন। এর কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া পাবেন না আশা করে।

সতর্কতা: আপনার দীর্ঘস্থায়ী কিডনি রোগ থাকলে সকল প্রকার ভিনেগার ব্যবহারে সতর্কতা অবলম্বন করুন। এবং ভিনেগার ব্যবহার শুরু করার পূর্বে আপনার ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন।

আর যারা Angiotensin-converting enzyme (ACE) inhibitors গ্রহণ করেন, তারাও সকল ধরণের ভিনেগার ব্যবহার শুরু করার পূর্বে নিজ ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন।

কোকোনাট ভিনেগার বাজার মূল্য

কোকোনাট ভিনেগার দাম হলো বাংলাদেশের বাজারে ১,১০০ টাকা থেকে শুরু করে ব্র্যান্ড ভিত্তিক ১,৬০০ টাকা পর্যন্ত বাজার দরে পাওয়া যায় এই ভিনেগার।

তবে এর গুনগত মান আমাদের জানা নেই, আপনি চাইলে নিজেই বাসায় এই ভিনেগার তৈরি করতে পারেন খুব সহজেই। আমাদের কোকোনাট ভিনেগারের রেসিপিটি অনুসরণ করে।

আরো পড়ুনঃ কোকোনাট ভিনেগার উইথ মাদার তৈরির সঠিক নিয়ম

আরো পড়ুনঃ আপেল সিডার ভিনেগার উইথ মাদার তৈরির নিয়ম ও উপকারিতাসমূহ। 

TAGS: #Best Benefits of Coconut Vinegar in Bengali #Most Valuable 7 Benefits of coconut vinegar #Is Coconut Vinegar Safe?

#How to use Coconut vinegar #coconut vinegar with mother Benefits in Bengali #Top 7 Benefits of coconut vinegar

#কোকোনাট ভিনেগারের উপকারিতারসমূহ #কোকোনাট ভিনেগার ব্যবহারের নিয়ম #কোকোনাট ভিনেগারের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া #কোকোনাট ভিনেগার কখন খেতে হয়? #কোকোনাট সিডার ভিনেগারের উপকারিতা #কোকোনাট ভিনেগার উইথ মাদার #কোকোনাট ভিনেগার দাম

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *