জানাযার নামাজের নিয়ম ও নিয়ত

জানাযার নামাজের নিয়ম | নিয়ত ও দোয়াসমূহ বাংলা উচ্চারণসহ

জানাযার নামাজ

জানাযার নামাজের নিয়ম বা সঠিক পদ্ধতি হলো, এই যে, মৃত ব্যক্তিকে সামনে উপস্থিত রেখে নিম্ম পদ্ধতি অনুসরণ করে জানাযার নামাজ আদায় করবে।

প্রিয় মুসলিম ভাই ও বুযুর্গগণ! আমরা সকলে মুসলিম! আল্লাহ তা’য়ালার সৃষ্ট সেরা মাখলুক চিরাচরিত নিয়মানুসারে আমাদের সকলকেই আল্লাহর ডাকে একদিন সাড়া দিতে হবে।

কেউ আগে কেউ বা পরে ছোট-বড় গরীব-ধনীর কোন ব্যধাবেধ নেই, সকলেই আগে/পরে আল্লাহর দরবারে হাজিরী দিতে হবে। এবং এই মৃত্যুর জন্য আগাম প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে হবে বেশী বেশী নেক আমলের মাধ্যমে।

কারণ মৃত্যু সকলের জন্যই নির্ধারিত রয়েছে, এরই তাগিদে আমাদেরকে জানতে হবে কাফন-দাফন পদ্ধতি ও জানাযার নামাজের নিয়ম । নিম্মে এই প্রসঙ্গে আমরা কুরআনুল কারীম ও হাদীসের তথ্যসহ পূর্ণ দিক নির্দেশনা দেয়ার প্রয়াস চালাব।

 

 

জানাযার নামাজের নিয়ম ও নিয়ত

 

জানাযার নামাজের নিয়ম ও নিয়ত

জানাযার নামাজ ফরজে কিফায়াহ এবং এটি রুকু সিজদা বিহীন শুধু চার তাকবীর বিশিষ্ট একটি নামাজ বা মৃত ব্যক্তির জন্য দোয়া প্রার্থনা করার একটি ইবাদাত। এবং এই নামাজ দাঁড়িয়ে কাতারবদ্ধ হয়ে আদায় করতে হয়।

নিন্মে জানাযার নামাজের নিয়ম ধারাবাহিকভাবে উল্লেখ করা হলো।

১. মৃত ব্যক্তিকে যখন জানাযার জন্য উপস্থিত করা হবে, তখন তাকে ক্বিবলার দিকে সামনে নিয়ে মনে মনে জানাযার নামাজ আদায়ের নিয়ত বা সংকল্প করবে

জানাযার নামাজের নিয়ত আরবী, বাংলা উচ্চারণসহ।

 

نية صلوٰة الجنازة : نَوَيْتُ أَنْ أُوَدِّيَ لِلهِ تَعَالٰى صَلٰوةُ الْجَنَازَةِ بِأَرْبَعِ تَكْبِيْرَاتٍ فَرْضُ الْكِفَايَةِ، اَلثَّنَاءُ لِلهِ تَعَالٰى وَالصَّلوٰةُ عَلٰى النَّبِيّ وَالدُّعَاءُ لِهٰذَا/لِهٰذِهِ الْمَيِّتِ بِاقْتِدَاءِ هٰذَا الإِمَامِ مُتَوَجِّهًا إِلٰى جِهَةِ الْكَعْبَةِ الشَّرِيْفَةِ • 

 

বাংলা উচ্চারণ:

না-ওয়াইতু আন ওয়াদ্দিয়া লিল্লাহি তা’য়ালা সলাতুল জানাযাতি বি-আরবায়ি তাকবীরাতিন, ফরজুল কিফায়াতি আচ্চানাউ লিল্লাহি তা’য়ালা, ওয়াস-সলাতু আলান্নাবী সা: ওয়াদ দোআউ লিহাজাল মাইয়্যিতি বি-ইক্বতিদায়ে হাজাল ইমামি মুতা-ওয়াজ্জিহান ইলা-জিহাতিল ক্বাবাতিশ শারীফাতি।

এরপর ইমামের সঙ্গে তাকবীরে তাহরীমা আল্লাহু আকবার বলে নামাজ শুরু করবে। হাত কানের লতি পর্যন্ত উঠাবে এবং নাভির নিচে বাঁধবে।

 

২. এরপর ইমাম সাহেবের সাথে সাথে তাকবীরে তাহরীমা বলে হাত বাঁধার পর জানাযার নামাজের ছানা পড়বে। জানাযার নামাজের ছানা হলো,

الثناء الجنازة : سُبْحَانَكَ اللّٰهُمَّ وَبِحَمْدِكَ وَتَبَارَكَ اسْمُكَ وَجَلَّ ثَنَاءُكَ وَلاَإِلٰهَ غَيْرُكَ

বাংলা উচ্চারণ:

সুব-হানাকাল্লাহুম্মা ওয়া বিহামদিকা ওয়া তাবারকাস-মুকা ওয়া তা’য়ালা জাদ্দুকা ওয়া জাল্লা ছানাউকা ওয়া লা-ইলাহা গাইরুকা।

 

৩. এরপর ইমাম সাহেবের সাথে দ্বিতীয় তাকবীর বলে নবী কারীম সা: এর উপর দুরুদ শরীফ পাঠ করবেন। এই ক্ষেত্রে দুরুদে ইবরাহীম আ. বা হাদীস শরীফে বর্ণিত যে কোন দুরুদ শরীফ পড়তে পারেন।

বি:দ্র: জানাযার নামাজের দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ তাকবীর বলার সময় হাত উঠানো যাবে না, এটি ঈদের নামাজের তাকবীরের বিপরীত।

 

৪. তারপর ইমাম সাহেবের সাথে তৃতীয় তাকবীর বলে মাইয়্যাত তথা: মৃত ব্যক্তির জন্য দোয়া করবে। হাদিস শরীফে বর্ণিত এই দোআ গুলো পড়বে।

• যদি মৃত ব্যক্তি প্রাপ্ত বয়স্ক (যে কোন বয়সের) পুরুষ হয় তাহলে এই দোআটি পড়বে।

 

اللَّهُمَّ اغْفِرْ لِحَيِّنَا وَمَيِّتِنَا وَشَاهِدِنَا وَغَائِبِنَا وَصَغِيرِنَا وَكَبيرِنَا وَذَكَرِنَا وَأُنْثَانَا’ اللَّهُمَّ مَنْ أَحْيَيْتَهُ مِنَّا فَأَحْيِهِ عَلَى الْإِسْلاَمِ وَمَنْ تَوَفَّيْتَهُ مِنَّا فَتَوَفَّهُ عَلَى الإِيمَانِ،

 

বাংলা উচ্চারণ:

আল্লাহুম্মাগফির লিহাইয়্যিনা ওয়া-মাইয়্যিতিনা ওয়া-শাহিদিনা ওয়া-গ-ইবিনা ওয়া-সগীরীনা ওয়া-কাবীরীনা ওয়া-যাকারীনা ওয়া-উংচানা।

আল্লাহুম্মা মান আহ-ইয়াইতাহু মিন্না ফাআহ-ইহি আলাল ইসলামি ওয়া-মান তাওয়াফফাহু মিন্না ফাতাওয়াফফাহু আলাল ঈমানি।

আর যদি মৃত ব্যক্তি প্রাপ্ত বয়স্কা নারী হয় তাহলে ও উপরোক্ত দোয়াটি পড়বে, তবে পুংলিঙ্গ শব্দের জায়গায় স্ত্রী লিঙ্গ শব্দ ব্যবহার করবে। তথা শব্দের শেষে হু (هٌ) শব্দ গুলোর জায়গায় হা (هَا) শব্দ ব্যবহার করবে।

• আর যদি মাইয়্যাত ছোট শিশু বা অপ্রাপ্ত বয়স্ক হয় তাহলে এই দোআটি পড়বে।

 

الدعاء للميت إذا كان ولدا صغيرا:  اللَّهُمَّ اجْعَلْهُ لَنَا فَرَطاً وَزُخْرًا وَّاجْعَلْهُ لنَا شَافِعًا وَمُشَفِّعًا،

 

বাংলা উচ্চারণ:

আল্লাহুম্মাজ-আলহু লানা ফারাতান ওয়া-যুখরান ওয়ায-আলহু লানা শাফীআন ওয়া-মুশাফফিয়া।

• আর যদি মৃত ব্যক্তি মেয়ে নাবালেগ শিশু হয়, তাহলে এই দোয়া পড়বে ।

 

الدعاء للميت إذا كان بنتا صغيرة : اللَّهُمَّ اجْعَلْهَا لَنَا فَرَطاً وَزُخْرًا وَّاجْعَلْهَا لَنَا شَافِعَةً وَّمُشَفِّعَةً.

 

বাংলা উচ্চারণ:

আল্লাহুম্মাজ-আলহা লানা ফারাতান ওয়া-যুখরান ওয়ায-আলহা লানা শাফীআতান ওয়া-মুশাফফিয়াহ।

 

৫. মাইয়্যিতির জন্য দোয়া শেষে ইমাম যখন চতুর্থ তাকবীর বলবে তখন শুধু তাকবীর আল্লাহু বলবে।

 

৬. সর্বশেষ চতুর্থ তাকবীর বলা শেষে ইমামের সাথে আসসালামু আলাইকুম ওয়া-রহমাতুল্লাহ বলে ডানে বামে সালাম ফিরিয়ে জানাযার নামায আদায় সমাপ্ত করবে।

 

বিশেষ দ্রষ্টব্য 

জানাযার নামাজের সালাম ফেরানোর ক্ষেত্রে ডানে-বামে সালাম ফিরিয়ে উভয় হাত ছেড়ে দেওয়া বা ডান দিকে সালাম ফিরিয়ে ডান হাত এবং বাম দিকে সালাম ফিরিয়ে বাম হাত ছেড়ে দিয়ে জানাযার নামাজ শেষ করার অনুমতি রয়েছে। আইম্মায়ে কেরাম থেকে উভয়টাই জানাযার নামাজের নিয়ম হিসেবে বর্ণিত আছে।

 

ربنا آتنا في الدنيا حسنة وفي الآخرة حسنة وقنا عذاب النار، رب ارحمهما كما ربنياني صغيرا،

পরিশেষে আল্লাহ্‌র কাছে এই ফরিয়াদ করি, তিনি যেন আমাদের সকল নেক আমলগুলোকে কবুল করে নেন।

এবং বেশী বেশী নেক আমল করার তাওফীক দান করেন।

আর সকল প্রকার কবীর-সগীরাহ গুনাহ থেকে হেফাজত করেন।

সাথে আমাদের বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়-স্বজন ও মাতা-পিতা যারা যারা কবরবাসী হয়ে গেছেন তাদের সকল গুনাহকে ক্ষমা করে দিয়ে, তাদেরকে জান্নাতুল ফেরদাউস নসীব করুন।

এবং আমাদের সকল কে কাল-হাশরের দিন নবী কারীম সা: এর হাতে হাউজে কাউসারের পানি করার সৌভাগ্য দান করুন।

ও তার আদর্শ মেনে দুনিয়াতে জীবন-যাপন করার তাওফীক দান করুন।

আমীন!! ‌

 

শিক্ষা ও নৈতিকতা একটি আলোচনা-পর্যালোচনা

8 thoughts on “জানাযার নামাজের নিয়ম | নিয়ত ও দোয়াসমূহ বাংলা উচ্চারণসহ”

  1. প্রত্তেকটি।মানুষ কে সালাত আদায় করা উচিৎ

  2. মমিনুল ইসলাম

    প্রত্যেকটি মানুষকে মরতে হবে তাই আসুন আমরা সকলেই নামাজ পড়ি।

Leave a Comment

Your email address will not be published.